Tuesday , 6 December 2022
আপডেট
Home » তথ্য ও প্রযুক্তি » রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে শুরু হলো পাঁচ দিনের ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার
রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে শুরু হলো পাঁচ দিনের ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার

রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে শুরু হলো পাঁচ দিনের ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার

আজকের প্রভাত প্রতিবেদক : দেশের সব শ্রেণির মানুষের মাঝে কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তির ব্যাপক ব্যবহার এবং এর সুফল ছড়িয়ে দিয়ে, বহুল প্রত্যাশিত ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে রাজধানীতে শুরু হলো ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার-২০১৮।
বুধবার দুপুরে ডিজিটাল লিটারেসি ফর এভরিওয়ান স্লোগানে রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে অবস্থিত কম্পিউটার সিটি সেন্টারে পাঁচ দিনব্যাপী ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ারের উদ্বোধন করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।
এ সময় উপস্থিত বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন মুক্তিযুদ্ধকালীন ঢাকা জেলা কমান্ডার, সাবেক সংসদ সদস্য ও বৃহত্তর এলিফ্যান্ট রোড দোকান মালিক সমিতির প্রধান উপদেষ্টা মোস্তাফা মহসীন মন্টু, শিক্ষাবিদ ও ইউনিভার্সিটি এশিয়া প্যাসিফিক এর উপাচার্য ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী, এফবিসিসিআই এর সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন), ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব শাহে আলম মুরাদ, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সভাপতি আলী আশফাক, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির চেয়ারম্যান মো. হেলাল উদ্দিন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ১৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলরজসীম উদ্দিন আহমেদসহ বিশিষ্টজনেরা।
৯ম বারের মতো আয়োজিত এ কম্পিউটার মেলায় প্রযুক্তিপণ্যের ওপর থাকছে নানা ছাড় ও উপহার। বুধবার সকাল এগারোটা থেকেই মেলায় তরুণ থেকে শুরু করে সব শ্রেণী পেশার মানুষের আগমণে মুখরিত মেলা প্রাঙ্গণ।
তৌফিক এহেসান বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের মানুষ এখন আমরা। ডিজিটাল যন্ত্র এখন আমাদের হাতের নাগালেই। আমরা এবার ডিজিটাল বাংলাদেশের জন্য প্রয়োজনীয় ডিজিটাল লিটারেসিকে থিম করেছি। আমাদের এবারের মেলার স্লোগান হচ্ছে- ডিজিটাল লিটারেসি ফর এভরিওয়ান। প্রতিবারের মতো এবারের মেলাতেও থাকছে নতুন নতুন প্রযুক্তিপণ্যর সমাহার। মানুষের কাছে সহজে ডিভাইস তুলে দেওয়ার পাশাপাশি নানা ছাড় ও উপহার রাখা হয় মেলায়। প্রতিবারের চেয়ে এবার আরও বড় পরিসরে ও জাঁকজমকভাবে মেলা আয়োজন করা হচ্ছে। একসঙ্গে এত প্রতিষ্ঠান এই মেলায় অংশগ্রহণ করে যা সবার জন্য সহজে পণ্য দেখার জন্য কেনার সুবিধা থাকে।
তৌফিক এহেসান আরও বলেন, দেশে ডিজিটাল লিটারেসির কোনো বিকল্প নেই। তাই সবার হাতে ডিভাইস পৌঁছাতে হবে। ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার আয়োজনের মাধ্যমে সে লক্ষ্য থাকে। এ বছর তাই স্লোগান রাখা হয়েছে ডিজিটাল লিটারেসি ফর এভরিওয়ান।
ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার ২০১৮ এর আহ্বায়ক জানান, এ মেলায় বাংলাদেশের শীর্য আইসিটি পণ্য আমদানীকারক ও ব্যবসায়ীদের বিশ্বের মানসম্পন্ন ব্র্যান্ডের লেটেস্ট প্রযুক্তি প্রদর্শন করা হবে। মেলায় আসা বিভিন্ন প্রযুক্তি পণ্যে থাকবে বিশেষ ছাড় ও আকর্ষণীয় উপহার।
তৌফিক এহেসান বক্তব্যের এক পর্যায়ে বলেন, পাঁচ দিনব্যাপী এ মেলায় অংশগ্রহণ করবে দেশের আইসিটি মার্কেটের ৬৫০টি আইটি প্রতিষ্ঠান। মেলায় বিশেষ আয়োজন হিসেবে থাকছে শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, সেলিব্রিটিদের মেলা পরিদর্শন, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে মেলায় প্রবেশ ও মেলা পরিদর্শনের ব্যবস্থাসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এ ছাড়াও মেলা চলাকালীন প্রবেশ টিকেটের উপর র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠিত হবে।
সংবাদ সম্মেলনে এবারের মেলার আহ্বায়ক ও কম্পিউটার সিটি সেন্টার সভাপতি তৌফিক এহেসান বলেন, এবারের মেলায় জোর দেওয়া হয়েছে ডিজিটাল ডিভাইস যাতে সবার হাতের নাগালে থাকে সে বিষয়টির ওপর। প্রয়োজনীয় পণ্য যাতে কিনতে কোনো অসুবিধা না হয় সে লক্ষে নানা ছাড় দেবে প্রতিষ্ঠানগুলো। মেলা চলাকালীন ডিজিটাল উন্নয়নমূলক বেশ কিছু আয়োজন থাকবে বলে জানান তিনি।
অনুষ্ঠানের দিন কম্পিউটার সিটি সেন্টারের লেভেল ১ এ অনুষ্ঠিত হবে আগত অতিথিদের শুভেচ্ছা বক্তব্য, লেভেল ৯ এ জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে ফিতা কেটে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন, লেভেল-৭ এ মহান মুক্তিযুদ্ধ ও ভাষা আন্দোলনে শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা ও শেষে মেলা পরিদর্শন। এছাড়াও মেলা চলাকালীন সময়ে থাকছে পিঠা উৎসব, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, র‌্যাফেল ড্র সহ প্রতিটি ফ্লোরে নানা আয়োজন।
১০ ফেব্রুয়ারি সকাল দশটায় তিন বছর থেকে ১২ বছর বয়সীদের তিনটি গ্রুপে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। মেলা চলবে ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ পর্যন্ত। মেলায় প্রবেশ মূল্য ১০ টাকা। তবে স্কুল শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে মেলায় প্রবেশ করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*