Friday , 17 August 2018
আপডেট
Home » আপডেট নিউজ » ৩৮তম সাফ জুনিয়র দাবায় চ্যাম্পিয়ন ফাহাদ রহমান ও নোশিন আঞ্জুম
৩৮তম সাফ জুনিয়র দাবায় চ্যাম্পিয়ন ফাহাদ রহমান ও নোশিন আঞ্জুম

৩৮তম সাফ জুনিয়র দাবায় চ্যাম্পিয়ন ফাহাদ রহমান ও নোশিন আঞ্জুম

ক্রীড়া প্রতিবেদক : সাইফ পাওয়ার ব্যাটারি ৩৮তম সাফ জুনিয়র (অনূর্ধ্ব-২০) দাবায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন পিরোজপুরের ফিদে মাস্টার মোহাম্মদ ফাহাদ রহমান এবং নরসিংদীর নোশিন আঞ্জুম। ওপেন বিভাগে ফাহাদ ৮ রাউন্ডে ৭ পয়েন্ট নিয়ে অপরাজিত এবং বালিকা বিভাগে নোশিন ৮ রাউন্ডে সাড়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। ফাহাদের এটি টানা তৃতীয় শিরোপা এবং নোশিনের দ্বিতীয়।
শনিবার জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের পুরাতন ভবনের দাবা কক্ষে অনুষ্ঠিত শেষ রাউন্ডের ওপেন বিভাগের খেলায় ফিদে মাস্টার ফাহাদ জাতীয় সাব-জুনিয়র চ্যাম্পিয়ন ময়মনসিংহের ক্যান্ডিডেট মাস্টার সুব্রত বিশ্বাসের সাথে ড্র করেন এবং বালিকা বিভাগে নোশিন এলিগেন্ট ইন্টারন্যাশনাল চেস একাডেমির আহমেদ ওয়ালিজাকে পরাজিত করেন।
ওপেন বিভাগে এলিগেন্ট ইন্টারন্যাশনাল চেস একাডেমির অনত চৌধুরী সাড়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে রানার-আপ হয়েছেন। ছয় পয়েন্ট করে নিয়ে টাইব্রেকিং পদ্ধতিতে অগ্রণী ব্যাংক দাবা দলের আব্দুল্লাহ আল রাইসন তৃতীয় স্থান, চট্টগ্রামের রাফি ইসলাম চতুর্থ, নারায়ণগঞ্জের সাদনান হাসান দিহান পঞ্চম, জাতীয় সাব-জুনিয়র চ্যাম্পিয়ন ময়মনসিংহের ক্যান্ডিডেট মাস্টার সুব্রত বিশ্বাস ষষ্ঠ ও সিরাজগঞ্জের নাঈম হক সপ্তম হন।
বালিকা বিভাগে মানিকগঞ্জের কাজী জারিন তাসনিম ৬ পয়েন্ট নিয়ে রানার-আপ হয়েছেন। সাড়ে পাঁচ পয়েণ্ট করে নিয়ে টাইব্রেকিং পদ্ধতিতে এলিগেন্ট ইন্টারন্যাশনাল চেস একাডেমির জান্নাতুল ফেরদৌস তৃতীয়, এলিগেন্ট ইন্টারন্যাশনাল চেস একাডেমির আহমেদ ওয়ালিজা চতুর্থ, চাঁপাইনবাগঞ্জের জান্নাতুল ফেরদৌসী পঞ্চম, এলিগেন্ট ইন্টারন্যাশনাল চেস একাডেমির নুশরাত জাহান আলো ষষ্ঠ ও নারায়ণগঞ্জের মোসাম্মৎ ঝর্না বেগম সপ্তম হন।
শনিবার বিকেলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেডের পরিচালক তরফদার মো. রুহুল সাইফ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শাহাব উদ্দিন শামীম, টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান ও ফেডারেশনের সহ-সভাপতি কে এম শহিদউল্ল্যা, যুগ্ম-সম্পাদক মনিরুজ্জামান পলাশ, সদস্য দেবাশিষ দে, আন্তর্জাতিক দাবা বিচারক মো. হারুন অর রশিদ এবং এলিগেন্ট ইন্টারন্যাশনাল চেস একাডেমির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহমুদা হক চৌধুরী মলি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*