Friday , 17 August 2018
আপডেট
Home » আপডেট নিউজ » ওয়ালটন অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন আবাহনী
ওয়ালটন অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন আবাহনী

ওয়ালটন অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন আবাহনী

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ওয়ালটন অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আবাহনী লিমিটেড।
রোববার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ফরাশগঞ্জ স্পোর্টিং ক্লাবকে ১-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে আবাহনীর যুবারা। ম্যাচের ৭ মিনিটে আবাহনীর রিমন হোসেন জয়সূচক একমাত্র গোলটি করেন। অবশ্য এই গোলটি নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। এ সময় আবাহনীর এক খেলোয়াড় ফরশাগঞ্জের গোলরক্ষককে ফেলে দেন। সেই সুযোগ বল জালে জড়ান রিমন। লাইন্সম্যান গোল বাতিলের নির্দেশ দিলেও রেফারি গোলটির বৈধতা দেন।
বিষয়টি নিয়ে ম্যাচ শেষে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ফরাশগঞ্জের কর্মকর্তাগণ। রেফারি পক্ষপাতমূলক আচরণ করেছেন বলেও সংবাদ মাধ্যমের কাছে অভিযোগ করেছেন তারা। আবাহনী অবশ্য রেফারির সিদ্ধান্তকেই চূড়ান্ত বলে জানিয়েছে এবং রেফারির সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে।
ম্যাচের শুরু থেকেই অবশ্য ফরাশগঞ্জের যুবারা ভালো খেলেছে। আক্রমণ, পাল্ট আক্রমণ থেকে শুরু করে বল দখলেও এগিয়ে ছিল পুরান ঢাকার দলটির যুবারা। কিন্তু কখনো কখনো ভালো খেলা দলটিকেও পরাজয় বরণ করতে হয়। ফরাশগঞ্জের ক্ষেত্রে তেমন কিছুই হয়েছে আজ। অবশ্য দুই অর্ধে গোল শোধ দেওয়ার বেশ কয়েকটি সুযোগ তারা পেয়েছিল। কিন্তু সেগুলো কাজে লাগাতে পারেনি। ফলে রানার্স-আপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে ফরাশগঞ্জকে।

চ্যাম্পিয়ন দল আবাহনীকে ৫ লাখ আর রানার্সআপ দল ফরাশগঞ্জকে ৩ লাখ টাকা প্রাইজমানি দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে টুর্নামেন্ট সেরা ফরাশগঞ্জের জয় চন্দ্র বর্মন, ফাইনালের সেরা আবাহনীর রিমন হোসেন, সর্বোচ্চ গোলদাতা (৩টি করে গোল) আপন চন্দ্র রায় (আবাহনী), আবু রায়হান (ব্রাদার্স) ও সাকিল আহমেদকে (আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ) হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হয়েছে।
ফাইনাল শেষে পুরস্কার বিতরণ করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হারুনুুর রশিদ, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও পেশাদার লিগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী, সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ, পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের সিনিয়র অপারেটিভ ডিরেক্টর এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) সহ অন্যান্যরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*