ঢাকারবিবার , ২৬ নভেম্বর ২০১৭

১ ডিসেম্বর আসছে রাইড শেয়ারিং অ্যাপ ইজিয়ার

editor
নভেম্বর ২৬, ২০১৭ ৩:৩৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আজকের প্রভাত প্রতিবেদক : দেশে আরেকটি স্মার্টফোন ভিত্তিক রাইড শেয়ারিং অ্যাপের যাত্রা শুরু হচ্ছে ১ ডিসেম্বর। অ্যাপটির নাম ইজিয়ার। সম্পূর্ণ দেশীয় উদ্যোক্তা ও প্রযুক্তিবিদদের তৈরি অ্যাপটির মাধ্যমে গাড়ি ও মোটরসাইকেল রাইড নেয়া যাবে। শুরুতে এই সেবা শুধুমাত্র রাজধানী ঢাকায় মিলবে। পর্যায়ক্রমে এই সেবা বন্দরনগরী চট্টগ্রাম ও সিলেটেও বিস্তৃত করা হবে।
রবিবার রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই সেবা চালুর ঘোষণা দেন অ্যাপটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইনোভেডিয়াস প্রাইভেট লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক কামরুল হাসান ইমন বলেন, বিজয়ের মাসের প্রথমদিন থেকে ঢাকার পরিবহন সংকট মেটাতে মোটরসাইকেল ও প্রাইভেট কার যাত্রীদের গন্তব্যে
পৌঁছে দেবে। কামরুল হাসান ইমন বলেন, অ্যাপটির মাধ্যমে প্রাইভেট কার সেবা নিলে বেস ফেয়ার দিতে হবে ৫০ টাকা। প্রতি কিলোমিটারের ভাড়া ২০ টাকা এবং মিনিট প্রতি ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ২ টাকা ৫০ পয়সা।
অন্যদিকে মোটরসাইকেলের বেস ফেয়ার নির্ধারণ করা হয়েছে ২৫ টাকা। প্রতি কিলোমিটারের ভাড়া ১২ টাকা। প্রতি মিনিটে গুণতে হবে ১ টাকা। যিনি মোটরসাইকেল ও প্রাইভেট কার দিয়ে যাত্রীর সঙ্গে রাইড শেয়ার দেবেন তাকে ভাড়ার ৮৫ শতাংশ দেয়া হবে। বাকি ১৫ শতাংশ কমিশন নেবে অ্যাপ নির্মাতারা।
ইজিয়ার অ্যাপের মাধ্যমে যিনি মোটরসাইকেল রাইড শেয়ার করবেন তাকে বলা ইজিয়ার বলছে রাইডার। এবং প্রাইভেট কারের মাধ্যমে যিনি রাইড শেয়ার করবেন তাকে বলা হচ্ছে পাইলট। দেশীয় প্রযুক্তিতে ব্যবহার বান্ধব করে এটি ডিজাইন করা হয়েছে। দেশের রাইড শেয়ারিং অ্যাপের খসড়া নীতিমালা মেনেই এটাকে সাজানো হয়েছে।
আরও বলেন,রাইড শেয়ারিং অ্যাপের খসড়া নীতিমালায় উল্লেখ করা হয়েছে যে প্রতিষ্ঠান অ্যাপের মাধ্যমে রাইড শেয়ারিং ব্যবস্থা চালু করবে তাদের নিজস্ব পরিবহন রাখা যাবে না। সেজন্য ইজিয়ারের কোনো নিজস্ব বাহন নেই। ফ্রিল্যান্সারাই রাইড শেয়ার দেবেন। অ্যাপটির নিরাপত্তার বিষয় উল্লেখ করে ইমন বলেন, আমাদের অ্যাপের মাধ্যমে যারা প্রাইভেট কার ও মোটরসাইকেলের মাধ্যমে যাত্রীদের সেবা দেবেন
তাদের জাতীয় পরিচয় পত্র, ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং ট্যাক্স টোকেন ভেরিফিকেশন করে পরিবহন সেবা দেয়ার জন্য অনুমতি দেয়া হচ্ছে। অন্যদিকে যিনি এই সেবা নেবেন
তিনি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে নিবন্ধিত হবেন। পর্যায়ক্রমে ইজিয়ার সেবা গ্রহীতাকে জাতীয় পরিচয় পত্রের মাধ্যমে সেবা নেয়ার জন্য নিবন্ধিত হতে হবে। এতে করে
রাইডার ও পাইলটের নিরাপত্তার বিষয়টিও নিশ্চিত করা যাবে। যারা এই সেবা নিতে চান তাদেরকে গুগলের প্লে স্টোর থেকে ঊততণজ অ্যাপটি ডাউনলোড করে ইনস্টল করে মোবাইল ফোন নম্বর দিয়ে নিবন্ধন করতে হবে।
আর যারা প্রাইভেট কার ও মোটরসাইকেল দিয়ে যাত্রীদের রাইড শেয়ার করবেন তাদের প্লে স্টোর থেকে ঊততণজ উৎরাব অ্যাপটি ডাউনলোড করে ইনস্টল দিয়ে
ড্রাইভিং লাইসেন্স, জাতীয় পরিচয়পত্র এবং ট্যাক্স টোকেনের ছবি অ্যাপে আপলোড করে নিবন্ধন করতে হবে। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ২৭ নভেম্বর ঢাকায় পরীক্ষামূলকভাবে ঢাকায় ইজিয়ারের সেবা চালু করা হবে। যদিও আনুষ্ঠানিকভাবে ইজিয়ারের সেবা মিলবে ১ ডিসেম্বর থেকে।২০১৮ সালের শুরুতে চট্টগ্রাম ও সিলেট শহর এই সেবার আওতায় আসবে। রুতে ইজিয়ারে যাত্রীদের সেবা দেয়ার জন্য ১০৫০ জন পাইলট তাদের ব্যক্তিগত গাড়ির জন্য নিবন্ধন করেছেন। মোটরসাইকেল নিবন্ধনকারীর সংখ্যা ১২০০।
এই সেবাটি জনপ্রিয় করতে এর বাইকার ও পাইলট এবং সেবাগ্রহীতাদের জন্য বিভিন্ন প্রমোশনাল অফার দেয়া হবে, এছাড়া থাকছে কাস্টমার সার্ভিস।

Please follow and like us:

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial